FreelancerStory.Com

ইন্টারনেটে কাজ করুন ঘরে বসে বৈদেশিক মুদ্রা আয় করুন

স্ক্রিল – অর্থ লেনদেনের সহজ ও নিরাপদ পদ্ধতি

Published On: September 23, 2013 Category: অনলাইন ফ্রিল্যান্সিং,অর্থ উত্তোলন, Comments Off on স্ক্রিল – অর্থ লেনদেনের সহজ ও নিরাপদ পদ্ধতি
মানিবুকার্স নিয়ে কম্পিউটার জগত নভেম্বর, ২০০৯ সংখ্যায় একটি লেখা প্রকাশিত হয় লেখক মোঃ জাকারিয়া চৌধুরী। এবারের সংখ্যায় মানিবুকার্সের এর নতুনরূপ স্ক্রিল এর ফিচার এবংকিছু গুরুত্বপূর্ণ বিষয় নিয়ে আলোচনা করা হবে।

https://goo.gl/nqzf9q

২০১২ সালের মে থেকে মানিবুকার্স তাদের রিব্র্যান্ডিং (স্ক্রিল) এর কাজ জনসমক্ষে শুরু করেছে, এবং যদিও তাদের পরিকল্পনা ছিলো ২০১১ সাল থেকেই। অফিসিয়াল ঘোষণা অনুযায়ী  ডিসেম্বর, ২০১২ এর মধ্যে এই রিব্র্যান্ডিং (স্ক্রিল) এর কাজ পুরোপুরি শেষ হয়ে যাবে। এখন পর্যন্ত তারা তাদের পুরোনো ওয়েবসাইটের মাধ্যমেই সব সেবা প্রদান করে যাচ্ছে (www.moneybookers.com), যদিও(www.skrill.com)  এ ব্রাউজ করা যায় কিন্তু শেষমেশ পুরনো সাইটেই ব্যবহারকারীকে রিডাইরেক্ট করা হয়।

 

স্ক্রিলকে ধরা হয় পেপালে প্রধান বিকল্প হিসেবে। বিশেষ করে যেসকল দেশে পেপালের কোন সাপোর্ট নেই সেসব দেশের জন্য স্ক্রিলএকটি আদর্শ মাধ্যম। এটি  পেপালের মতই নিরাপদ, দ্রুত এবং সাশ্রয়ী অর্থ লেনদেনের পদ্ধতি। এর মাধ্যমে একজন ব্যবহারকারী থেকে অপর আরেকজনের কাছে মূহুর্তের মাধ্যে অর্থ লেনদেন করা যায়। অর্থ লেনদেনের জন্য প্রাপকের নাম বা ব্যাংক একাউন্ট কিছুই জানার প্রয়োজন নেই, কেবল তার ইমেইল ঠিকানাটিই যথেষ্ঠ।

 

বর্তমানে স্ক্রিলে  ৩০ মিলিয়ন একাউন্ট হোল্ডার রয়েছে। এটি বাংলাদেশসহ বিশ্বের ২০০টিরও বেশি দেশে ১০০ প্রকারের অর্থ লেনদেনের সুবিধা প্রদান করে ৪১ প্রকারের কারেন্সিতে। ১ লক্ষ ৩৫ হাজারেরও বেশি মার্চেন্ট প্রতিষ্ঠান মানিবুকারের মাধ্যমে অনলাইনে সার্ভিস দিয়ে থাকে, যার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে eBay.com, Skype এবং Thomas Cook

 

স্ক্রিল এর বহু ধরনের ব্যবহার থাকলেও আমাদের দেশে ফ্রিল্যান্সাররা ফ্রিল্যান্স আউটসোর্সিং মার্কেটপ্লেস থেকে অর্থ উত্তোলনের জন্য এটি ব্যবহার করে থাকেন। যেহেতু বড় বড় সব মার্কেটপ্লেসগুলো স্ক্রিল সাপোর্ট করে তাই ফ্রিল্যান্সাররা এটি ব্যবহার করতে সাচ্ছন্দ্যবোধ করেন বেশী। সাশ্রয়ী অর্থ লেনদেন এর একটি বড় গুন। মোটামুটি নামকরা সকল মার্কেটপ্লেস যেমনঃ oDesk, Elance, Freelance, Envato Marketplace (ThemeForest, GraphicRiver etc), 99Designs, MochiMedia ইত্যাদি পেপালের, পেওনার এর পাশাপাশি স্ক্রিলও সাপোর্ট করে।

 

যদিও নভেম্বর, ২০০৯ সংখ্যায় অনেক বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়েছিলো, তবুও আমি এখানে সেগুলো আবার আলোচনা করছি যেহেতু স্ক্রিলের নিয়মকানুনে অনেক পরিবর্তন আনা হয়েছে।

 

রেজিষ্ট্রেশন করার পদ্ধতি:

 

স্ক্রিল এ রেজিষ্ট্রেশন অত্যন্ত সহজ, যা কয়েক মিনিটের মধ্যেই সম্পন্ন হয়ে যায় এবং তা ফ্রি। তবে স্ক্রিলের সম্পূর্ণ সুবিধা পেতে হলে কয়েকটি বিষয় নিশ্চিত করতে হবে। স্ক্রিলের নিরাপত্তা জোরদার করার জন্য এটি প্রত্যেক ব্যবহারকারীকে তিনটি পদ্ধতিতে যাচাই করে থাকে। এগুলো হচ্ছে ঠিকানা যাচাই, ব্যাংক একাউন্ট যাচাই এবং ক্রেডিট/ডেবিট কার্ড যাচাই। তৃতীয় পদ্ধতিটি হচ্ছে ঐচ্ছিক, তবে প্রথম দুটি অবশ্যই সম্পন্ন করতে হবে।
ঠিকানা নিশ্চিত করা:
লগইন করার পর My Account পৃষ্ঠায় Account Status অংশ থেকে Address Verify লিংকে ক্লিক করুন। পরবর্তী পৃষ্ঠায় আপনার ঠিকানাটি দেখাবে, এরপর “Send me a verification letter” বাটনে ক্লিক করুন। স্ক্রিল আপনার ঠিকানায় একটি চিঠি পাঠাবে। চিঠিটি আসতে কয়েক সপ্তাহ সময় লাগতে পারে। চিঠিতে আপনাকে ছয়টি সংখ্যার একটি কোড পাঠানো হবে। কোডটি পাবার পর সাইটে লগইন করে “My Account” > “Profile” পৃষ্ঠায় গিয়ে আপনার ঠিকানার পাশের “Verify” লিংকে ক্লিক করুন। তারপর সেই কোডটি জমা দিন। এরপর আপনি স্ক্রিলের মাধ্যমে অর্থ লেনদেন শুরু করতে পারবেন।
ব্যাংক একাউন্ট যোগ করা:
স্ক্রিল থেকে আপনার ব্যাংকে অর্থ উত্তোলন করতে হলে My Account থেকে প্রথমে একটি ব্যাংক যোগ করে নিন। এক্ষত্রে আপনার ব্যাংকের SWIFT কোড, ব্যাংকের ঠিকানা, আপনার ব্যাংক একাউন্ট নাম্বার ইত্যাদি দিতে হবে। স্ক্রিলে ব্যাংক একাউন্ট যোগ করার সাথে সাথে আপনি ব্যাংকে অর্থ উত্তোলন করতে পারবেন। তবে এক্ষেত্রে স্ক্রিল আপনার ব্যাংক একাউন্টটি যাচাই করতে বলবে। ব্যাংক একাউন্ট যাচাই করার জন্য ব্যবহারকারীর ব্যাংক থেকে মানিবুকরসের একাউন্টে সামান্য পরিমাণ অর্থ (৫ থেকে ১০ ডলার) প্রেরণ করতে হয়। তবে বাংলাদেশের আইনের জন্য কোন ব্যাংক থেকেই স্ক্রিলে কোন টাকা পাঠাতে পারবেন না। এক্ষত্রে নিচের পদ্ধতিটি অনুসরণ করুন
 
১। কোন ফ্রিল্যান্সিং সাইট থেকে অর্থ পাবার পর স্ক্রিল দিয়ে একবার উত্তোলন করুন। ব্যাংক একাউন্ট যাচাই না করেও আপনি দুইবার অর্থ উত্তোলন করতে পারবেন। এজন্য লগইন করে Withdraw লিংকে ক্লিক করুন।
| যেহেতু আমাদের দেশ থেকে স্ক্রিলে কোন টাকা পাঠাতে পারবেন না সেহেতু আগে থেকেই ওদের এই জিনিসটা জানিয়ে দিন। এর জন্য তাদের কাস্টমার কেয়ারে যোগাযোগ করতে হয়। কাস্টমার কেয়ারে ম্যাসাজ কেমন করে দিবেন তা নিচে বর্ননা করছি।
) My Account পেজ এ ঢুকার পর বাম দিকে Email Support নামে একটা লিঙ্ক পাবেন, অথবা লগইন করার পর এই লিঙ্কে যান https://www.moneybookers.com/app/faqmessaging.pl

) আগত Support Centre নামের নতুন পেজে নিচের চিত্রের মত কয়েকটা ট্যাব দেখতে পাবেন। সেখান থেকে My Profile ট্যাবে ক্লিক করুন। 
) My Profile ট্যাবের অধীনে অনেক গুলো অপশন পাবেন তন্মধ্যে সব থেকে নিচের General My Account enquiries এ ক্লিক করলে টেক্সটবক্স ওপেন  হবে।

) উক্ত টেক্সটবক্সে বাংলাদেশের আইনের জন্য কোন ব্যাংক থেকেই স্ক্রিলে কোন টাকা পাঠাতে পারবেন না তা বলুন। শেষে সাবমিট বাটনে ক্লিক করে মেসেজ পাঠিয়ে দিন।
) মেসেজ পাঠানো  শেষ হলে নিচের চিত্রের মত একটা কনফার্মেশন বার্তা দেখাবে, যার দ্বারা আপনি বুঝতে পারবেন আপনার টিকেটের সমস্যা তাদের কাছে পৌঁছেছে।

এবং ভবিষ্যত অনুসন্ধানের জন্য বার্তায় দেয়া টিকেট আইডিটা সংগ্রহে রাখুন।
) স্ক্রিল থেকে টাকা Withdraw দেবার পর ৫ থেকে ৭ দিন সময় নিবে আপনার ব্যাংক অ্যাকাউন্টে আসতে। এই ফাঁকে আপনার ওপেন করা টিকেটেরও উত্তর এসে যাবে স্ক্রিল সাপোর্ট সেন্টার থেকে ম্যানুয়ালি ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট ভেরিফাই কেমন করে করবেন। সাধারণত স্ক্রিল ম্যানুয়ালি ব্যাংক অ্যাকাউন্ট করার জন্য একটি ব্যাংক স্টেটমেন্ট, দেশের বৈধ নাগরিক তা প্রমাণের জন্য জাতীয় পরিচয়পত্র / পাসপোর্ট / ড্রাইভিং লাইসেন্স এর অনুলিপি চায়।
) টাকা ব্যাংকে জমা হবার পর ব্যাংক থেকে একটি ব্যাংক স্টেটমেন্ট চেয়ে নিন।
ব্যাংক স্টেটমেন্টের মধ্যে স্ক্রিল থেকে আপনি যে অর্থ পেয়েছেন তার তারিখ এবং ডলারের পরিমাণ দেখতে পাবেন। কিন্তু এই ডলার কার কাছ থেকে এসেছে তা উল্লেখ থাকবে না। এজন্য আপনাকে ওই লেনদেনের SWIFT Transaction নামক আরেকটি কাগজ সংগ্রহ করতে হবে। সাধারণত ব্যাংক এই কাগজটি আপনাকে দিতে চাইবে না। কিন্তু আপনি যদি পুরো বিষয়টি তাদেরকে বুঝিয়ে বলতে পারেন তাহলে তারা আপনাকে কাগজটির ফটোকপি দিতে সম্মত হবে।
৪। ব্যাংকের যথাযথ কর্তৃপক্ষ দ্বারা কাগজগুলো সত্যায়িত করার পর এগুলোকে স্ক্যান করে কম্পিউটারে নিয়ে নিন। সাথে জাতীয় পরিচয়পত্র / পাসপোর্ট / ড্রাইভিং লাইসেন্স এর যেকোন একটিও স্ক্যান করে কম্পিউটারে নিয়ে নিন। উল্লেখ্য যদি আপনার উপোরক্ত তিনটির একটিও না থাকে তবে শুধুমাত্র ব্যাংক স্টেটমেন্ট এর স্ক্যান কপি দিয়ে ব্যাংক অ্যাকাউন্ট ভেরিফাই করা যায়। যদি একাধিক স্ক্যান কপি হয় তবে সেগুলো জিপ করে নিন।
| ) এরপর ২ নং ধাপের মত Email Support পেজে এ যান। সেখান থেকে Account/Security ট্যাবে ক্লিক করুন।

 

) নতুন আসা পেজ থেকে You have requested information and/or documents from me লেখায় ক্লিক করুন।

) ২ নং ধাপে প্রাপ্ত টিকেট আইডি এই ধাপের টিকেট আইডি বক্সে এ বসান। Upload documents রেডিও বাটন অন রেখে, Browse বাটনে ক্লিক করুন।
এটাচমেন্টগুলো জিপ করা থাকলে সিলেক্ট করে দিন। এবং নিচের টেক্সট বক্সের মাধ্যমে তাদেরকে জানিয়ে দিন বাংলাদেশ থেকে যেহেতু কোন টাকা স্ক্রিলে পাঠানো সম্ভব নয় তাই আপনি ব্যাংক স্টেটমেন্ট এবং সংশ্লিষ্ট কাগজের স্ক্যান কপি এই টিকেটের মাধ্যমে পাঠাচ্ছেন যা তারা চেয়েছিলো। তারা যেন Manually আপনার ব্যাংক একাউন্ট যাচাই করে নেয়। এবং যদি আপনার জাতীয় পরিচয়পত্র / পাসপোর্ট / ড্রাইভিং লাইসেন্স না থাকে সেটার কারনও জানিয়ে দিন।
৬। ইমেইল পাঠানোর ৫ থেকে ৭দিনের মধ্যে আপনি স্ক্রিল থেকে ইমেইল পাবেন। সবকিছু উপরে উল্লেখিত নিয়ম অনুযায়ী করতে পারলে স্ক্রিল কর্তৃপক্ষ আপনার ব্যাংক একাউন্টটি নিশ্চিত করে নিবে। এরপর আপনি স্ক্রিলের সকল সুবিধা নিরবিচ্ছিন্নভাবে উপভোগ করতে পারবেন।
স্ক্রিলে ব্যাংক একাউন্ট যুক্ত করে তা যাচাই করাটা প্রথম দিকে একটু ঝামেলাপূর্ণ। কিন্তু একবার যাচাই হয়ে গেলে স্ক্রিলের কল্যাণে অনলাইনে অর্থ লেনদেনের একটি বিশাল ক্ষেত্র আপনার সামনে উন্মোচিত হয়ে যাবে। যা দিয়ে অনলাইন ফ্রিল্যান্সিং, ইকমার্স সাইট তৈরি, অনলাইনে কেনাকাটা ইত্যাদি অসংখ্য কাজে স্ক্রিলকে ব্যবহার করতে পারবেন। বাংলাদেশী ফ্রিল্যান্সাররা তাদের পরিচিতি ক্লায়েন্টের কাছ থেকে এই পদ্ধতিতে কোন খরচ ছাড়াই সরাসরি অর্থ গ্রহণ করতে পারবে (যুক্তরাষ্ট্রের ক্লায়েন্ট ব্যাতীত)। স্ক্রিল একদিকে যেমন স্বাশ্রয়ী, অন্যদিকে নিরাপদ এবং ঝামেলাবিহীণ অনলাইন লেনদেনের মাধ্যম।
ক্রেডিট/ডেবিট কার্ড যোগ করা:
যাদের ক্রেডিট/ডেবিট কার্ড রয়েছে তারা ইচ্ছে করলে স্ক্রিলে কার্ডটি যোগ করে কার্ডের টাকা স্ক্রিলে নিয়ে যেতে পারবেন। বর্তমানে অনেকেরই পেওনার প্রদত্ত ডেবিট মাস্টারকার্ড রয়েছে। এই কার্ডের নানাবিধ সুবিধা রয়েছে। তবে এই কার্ডের টাকাকে শুধুমাত্র ATM থেকে ক্যাশ হিসেবে উত্তোলন করতে হয়, ব্যাংকের সাথে এর কোন যোগাযোগ নেই। আপনি যদি কার্ডের টাকাকে আপনার ব্যাংকে জমা রাখতে চান তাহলে ATM থেকে টাকা নিয়ে ব্যাংকে গিয়ে জমা দিতে হবে। ATM থেকে এক দিনে একটি নির্দিষ্ট অংকের বেশি অর্থ উত্তোলন করতে পারবেন না। ফলে বড় অংকের অর্থের ক্ষেত্রে কয়েকদিনে টাকা জমা দিতে হবে, যা ঝামেলাপূর্ণ এবং নিরাপদও নয়। স্ক্রিলের মাধ্যমে সেই কাজটি ঘরে বসেই কয়েকটি ক্লিকের মাধ্যমেই করতে পারবেন। এজন্য প্রথমে আপনার মাস্টারকার্ডটি স্ক্রিলে যোগ করুন। কার্ডটি সঠিকভাবে যাচাই হবার পর উপরের মেনু থেকে Upload Funds লিংকে ক্লিক করে Credit Card অপশনটি সিলেক্ট করুন। এরপর আপনার কার্ডের পেছনে লেখা তিনটি সংখ্যার CVV2 কোড দিন এবং কত টাকা কার্ড থেকে স্ক্রিলে নিতে চান তা উল্লেখ করুন। Next বাটনে ক্লিক করার সাথে সাথেই কার্ড থেকে স্ক্রিলের একাউন্টে টাকা জমা হয়ে যাবে। এরপর মেনু থেকে Withdraw লিংকে ক্লিক করে এই টাকা আপনার ব্যাংক একাউন্টে প্রেরণ করুন। কার্ড থেকে স্ক্রিলে টাকা আনতে ১.% চার্জ যুক্ত হবে, যা মাস্টারকার্ডের মাধ্যমে টাকা উত্তোলনের চেয়ে স্বাশ্রয়ী। কারণ পেওনারের মাস্টারকার্ড থেকে ATM এর মাধ্যমে প্রতিবার টাকা উত্তোলন করতে ৩% চার্জ দিতে হয়।

পোস্টটি শেয়ার করূন, অন্যজনকে জানতে দিন

Comments are closed.